in

LoveLove CuteCute OMGOMG AngryAngry CryCry LOLLOL

অশ্বগন্ধা কী? কেন খাবেন? কীভাবে খাবেন?

অশ্বগন্ধা

অশ্বগন্ধা নামটি আমাদের অনেকের কাছেই বেশ চেনা। তবে, বেশিরভাগ মানুষ গাছটির নাম শুনলেও, সামনাসামনি এটিকে দেখেননি। আবার এটা হয়তো আমাদের বাড়ির আশেপাশে আছে, অথচ, আমরা গাছটিকে চিনি-ই না।

বর্তমান সময়ে, যে হারে গাছপালা কেটে ফেলা হচ্ছে, তাতে ঔষধি বা ভেষজ গাছগুলো বলতে গেলে প্রায় বিলুপ্তির পথে।

এখনকার সময়ে অসুস্থতার জন্য কিংবা মানসিক চাপ দূর করতে অনেকেই ভেষজ উপাদানের সাহায্য নেন। বিজ্ঞানীরাও গবেষণা করে জানিয়েছেন যে, আমরা যে প্রক্রিয়াজাত ঔষুধ বা খাবার খাই, তার থেকে সরাসরি প্রকৃতি থেকে প্রাপ্ত ভেষজ বা খাদ্য বেশি উপকারী। আর তেমনি একটি ভেষজ উপাদান হলো অশ্বগন্ধা। 

তো, আজ আমরা জানবো, অশ্বগন্ধা কী, এটি কেন খাবেন, কীভাবে খাবেন, তা সম্পর্কে। 

Himalaya Ashvagandha Pure Herbs General Wellness 60 Tablets, Himalaya

★★★★★
BDT 550.00
Buy Now
cellsii.com

Description

Himalaya Ashvagandha Pure Herbs

Buy Himalaya Ashvagandha (Ashwagandha) pure herbs 60 tablets for general wellness online in Bangladesh from Cellsii.com. Ashwagandha is an evergreen shrub that grows in India, the herb is considered one of the most important herbs in the ayurvedic...

অশ্বগন্ধা কী?

অশ্বগন্ধা কোনো বাংলা শব্দ বয়, বরং এটি একটি সংস্কৃত শব্দ। সেখান থেকেই বাংলাভাষী মানুষের মুখে ঠাঁই পেয়েছে শব্দটি। এর বৈজ্ঞানিক নাম Withania somnifera। নামকরণ নিয়ে যা জানা যায়, তা হলো- অশ্বগন্ধা পানিতে সেদ্ধ করা হলে, অনেকটা ঘোড়ার মূত্রের ন্যায় গন্ধ পাওয়া যায়। এ কারণেই এর নাম অশ্বগন্ধা

অশ্বগন্ধা দেখতে কেমন?

আপনি হয়তো ভাবতে পারেন, গাছটি আপনি দেখেননি৷ তবে, সত্যি বলতে এটি আপনার বাড়ির আশেপাশেই কোথাও আছে। তবে হতে পারে, আপনি গাছটিকে চেনেন না। 

কিছু গাছ আছে, যেগুলোতে সবজি ও ছোট টমেটোর মতো ফল হয়৷ পরে লাল টকটকে টমেটোর মতো রং ধারণ করে। তবে তা আকারে খুব ছোট। প্রাথমিক অবস্থায় এগুলো এক প্রকার সুন্দর খোসা দ্বারা আবৃত থাকে। পরে তা চারদিকে ছড়িয়ে যায়৷ এটাই মূলত, অশ্বগন্ধা গাছ।

এখনকার সময়ে অসুস্থতার জন্য কিংবা মানসিক চাপ দূর করতে অনেকেই ভেষজ উপাদানের সাহায্য নেন। বিজ্ঞানীরাও গবেষণা করে জানিয়েছেন যে, আমরা যে প্রক্রিয়াজাত ঔষুধ বা খাবার খাই, তার থেকে সরাসরি প্রকৃতি থেকে প্রাপ্ত ভেষজ বা খাদ্য বেশি উপকারী। আর তেমনি একটি ভেষজ উপাদান হলো অশ্বগন্ধা। 

অশ্বগন্ধা কেন খাবেন?

অশ্বগন্ধা বিভিন্ন রোগের জন্য বেশ উপকারী। নিচে ধারাবাহিক ভাবে কয়েকটি উপকারীতার কথা উল্লেখ করা হলো-

. পেশি মজবুত করতে

শরীরের মাংসপেশী মজবুত করে তুলতে চাইলে অশ্বগন্ধা খেতে পারেন। পেশির গঠনে এটা বেশ ভালো কাজ করে।

. অনিদ্রা দূর করতে চাইলে

যারা অনিদ্রার সমস্যায় ভোগেন, তারা চাইলেই অশ্বগন্ধা খেতে পারেন। এটা আপনার অনিদ্রার সমস্যা দূর করতে সহায়ক। অশ্বগন্ধা যেকোনো ভাবেই খান না কেন, এটা অবশ্যই ফলাফল প্রদান করে।

এক নজরে অশ্বগন্ধার কিছু গুণাগুণ

. মস্তিষ্ক সচল রাখতে

মস্তিষ্ক সচল রাখতে কিংবা মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করতে চাইলে অশ্বগন্ধা খেতে পারেন।

. ডায়াবেটিস এর সমাধানে

অনেকেরই এখন ডায়াবেটিসের সমস্যা আছে। আছে তাই এই রোগ থেকে নিজেকে কিছুটা সুস্থ রাখতে হলেও, অশ্বগন্ধা খেতে পারেন।

. থাইরয়েডের সমস্যায়

থাইরয়েডের সমস্যা যাদের আছে, তারাও খেতে পারেন অশ্বগন্ধা। শরীরে থাইরয়েডের প্রভাব কমাতে অনেক কার্যকর এটি। 

. মানসিক সুস্থতায়

মানসিকভাবে সুস্থ থাকার ক্ষেত্রেও অশ্বগন্ধা উপকারী। তাই নিজেকে স্ট্রেস কিংবা ডিপ্রেশন ফ্রি রাখতে চাইলে, এটি খাওয়ার অভ্যাস করতে পারেন।

. চুলের যত্নে

নিজের চুলকে ঝলমলে কে না দেখতে চায়? আর ঝলমলে চুলের জন্য দরকার প্রয়োজনীয় যত্ন নেয়ার পাশাপাশি, চুলকে দরকারি পুষ্টি দেয়া। তাই অশ্বগন্ধা ব্যবহার করলেও আপনার চুল পুষ্টি পাবে। চুলকে ঝলমলে করে তুলতে অশ্বগন্ধা দারুণ কাজ করে। 

৮. হার্টের যত্নে

হার্টকে সুস্থ রাখতে চাইলেও অশ্বগন্ধা ব্যবহার করতে পারেন।

. শারীরের ব্যথা দূরীকরণে

হাত কিংবা পায়ে ব্যথা থাকলে অশ্বগন্ধা ব্যবহার করতে পারেন। পেশি মজবুত করার পাশাপাশি ব্যথা দূর করতেও সক্ষম এই ভেষজ উপাদান।

১০. বিষের বিরুদ্ধে অশ্বগন্ধা 

সাপের কামড়ে শরীরে যে বিষ স্থানান্তরিত হয়, তা দূর করতে অশ্বগন্ধা উপকারী এবং কার্যকর। 

১১. ঠান্ডা কিংবা সর্দিকাশির সমস্যায়

ঠান্ডায় অথবা সর্দি কাশির সমস্যায় আক্রান্ত থাকলে অশ্বগন্ধা খেতে পারেন। 

১২. আর্থেসিস এবং রিউম্যাটয়েড 

আর্থেসিস এবং রিউমেটাডয়েক সমস্যায় আক্রান্ত হয়ে থাকলে অশ্বগন্ধা খেতে পারেন।

অশ্বগন্ধার অসুবিধা 

অতিরিক্ত অশ্বগন্ধা ব্যবহার করার ফলে বিপরীত প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। কখনো, বমি বমি ভাব দেখা দিতে পারে। আবার, খুব বেশি পরিমাণে অশ্বগন্ধা ব্যবহার করার ফলে শরীর দুর্বল হয়ে যেতে পারে। কখনো আবার, মানসিক ভাবে সমস্যা হতে পারে এবং মাথা ব্যথা হওয়ার মতো সমস্যা দেখা দেয়ার সম্বাবনাও থাকে। 

অশ্বগন্ধা কীভাবে খাবেন?

বলতে গেলে, অশ্বগন্ধা গাছের পাতা কাউকেই সরাসরি খেতে দেখা যায় না। বরং এখন বাজারে অশ্বগন্ধা পাতা থেকে পাউডার, কিংবা এ থেকে তৈরি করা ট্যাবলেটের দেখা মিলবে সহজেই। তাই তার সেবনবিধি অনুযায়ী অশ্বগন্ধা গ্রহণ করতে পারেন। 

আর তাছাড়া, অনেক চিকিৎসক এটি খাওয়ার পরামর্শ দেন। তাই কোন রোগের জন্য কীভাবে অশ্বগন্ধা সেবন করবেন, তা জানার জন্য কোনো ভালো একজন ডাক্তারের সাথে আলাপ করতে পারেন।

সবশেষে

আজকে আমরা আমাদের এই লেখায় অশ্বগন্ধা সম্পর্কে সব কিছু আলোচনা করেছি। এটা কী, কেন খাবেন, কিভাবে খাবেন ইত্যাদি সম্পর্কে আমরা সুস্পষ্টভাবে ফুটিয়ে তুলেছি। এরকম আরো দরকারী এবং উপকারী লেখা এবং টিপস পেতে অবশ্যই আমাদের সাইটটি ফলো করে রাখুন।

What do you think?

10 Points
Upvote Downvote

Written by বিবি মরিয়ম লাবণ্য

আসসালামু আলাইকুম। আমি বর্তমানে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ভোলা সরকারি কলেজে পড়াশোনা করছি। এর পাশাপাশি অনলাইনে একজন কনটেন্ট রাইটার ও ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

GIPHY App Key not set. Please check settings

ইসলামে অনিদ্রার নিরাময়

ঘুম না আসার কারণ ও প্রতিকার

রোজার প্রস্তুতি

রোজা অবস্থায় ক্ষুধা ভুলে সময় পার করবেন যেভাবে